Blog

ওয়ার ক্রাইয়ের প্রত্যুত্তর হল ওয়ার ক্রাই, নারা-এ – তকবীরের প্রত্যুত্তর হল জয় শ্রীরাম

১৪০০ বছর ধরে আমাকে বলা হচ্ছে তুমি কাফের, তুমি মুশরিক, তুমি মূর্তিপূজক। অত‌এব তুমি ঘৃণ্য, তুমি হীন, যতক্ষণ পর্যন্ত না তুমি আমার পথ অনুসরণ করছো, ততক্ষণ তোমাকে ধ্বংস করাই আমার কর্তব্য। শুধু বলা হয়েছে এমন নয়। ৭১২ সালে রাজা দাহিরের পতন থেকে শুরু করে আজ, এই মুহূর্ত পর্যন্ত আমার স্বজাতির উপরে আমার এই স্বভূমির উপরে … পড়তে থাকুন “ওয়ার ক্রাইয়ের প্রত্যুত্তর হল ওয়ার ক্রাই, নারা-এ – তকবীরের প্রত্যুত্তর হল জয় শ্রীরাম”

হিন্দু যদি বীরের মত মরিতে প্রস্তুত না থাকে, অলক্ষ্যে ছুরি খাইয়া মরিতে হইবে

“….ভারতবর্ষে #মুসলমান প্রভাব আরম্ভ হইবার সময় হইতে আজ পর্যন্ত #হিন্দু উৎপীড়িত হইয়াছে, উৎপীড়ণ করে নাই। মুসলমানধর্ম রাজধর্ম বলিয়া, উৎপীড়ক ধর্ম বলিয়া ভারতবর্ষে হিন্দুর সংখ্যা ক্রমশ হ্রাস হইয়া মুসলমান-ধর্মালম্বীর সংখ্যা বৃদ্ধি হইয়াছে। হিন্দুর এই সংখ্যা হ্রাসের অন্যতম প্রধান কারণ, হিন্দুর সামাজিক অত্যাচার ও অবিবেচনা। সম্প্রতি সেগুলি দূর করিবার চেষ্টা হইতেছে, এইটাই ভারতবর্ষের পরম শুভ লক্ষণ। শুদ্ধি … পড়তে থাকুন “হিন্দু যদি বীরের মত মরিতে প্রস্তুত না থাকে, অলক্ষ্যে ছুরি খাইয়া মরিতে হইবে”

সিএএ-র বাস্তবায়ন চাই

বাংলাদেশে হিন্দু নির্যাতনের কারণে শুধু ওপার বাংলার হিন্দুরাই ক্ষতিগ্রস্ত হন নি, এপারের মূলনিবাসী বাঙ্গালী হিন্দুরাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এই বঙ্গের জমি, প্রাকৃতিক সম্পদ, কর্মসংস্থান- সবকিছুতেই তাদের অংশীদারিত্ব কমেছে। দেশভাগের পাপের বোঝা আজও ব‌ইতে হচ্ছে শুধুমাত্র বাঙ্গালী হিন্দু জাতিকে।ওপার থেকে বিতাড়িত হয়ে যারা এসেছিলেন অথবা আজও আসছেন, তাদের মনে ওপারে ফেলে আসা ‘মাঠ ভরা ধান, পুকুর ভরা … পড়তে থাকুন “সিএএ-র বাস্তবায়ন চাই”

এই যুগ সভ্যতার সংঘাতের যুগ, Clash of Civilization এর যুগ

এই যুগ সভ্যতার সংঘাতের যুগ, Clash of Civilization এর যুগ। টিকে থাকতে হলে সংঘর্ষ করতে হবে। বৌদ্ধিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক- সবক্ষেত্রেই এই সংঘর্ষ হবে, রাজনৈতিক ক্ষেত্রও বাদ যাবে না। যারা শক্তিশালী হবে, রাজনৈতিক দলগুলো‌ও সেদিকে ঝুঁকবে। দেশব্যাপী হিন্দুত্বের জাগরণ হচ্ছে। এই কথা মাথায় রেখে বাঙ্গালী হিন্দুকেও নিজের সভ্যতা, সংস্কৃতি, সর্বোপরি নিজের জাতিসত্ত্বার গোড়ায় জল দিতে হবে। … পড়তে থাকুন “এই যুগ সভ্যতার সংঘাতের যুগ, Clash of Civilization এর যুগ”

সিরাজ-শ্রীরাম সহাবস্থান’ নাকি ‘আপোষহীন হিন্দুত্ব’

সিরাজ-শ্রীরাম সহাবস্থান’ নাকি ‘আপোষহীন হিন্দুত্ব’, ‘তৃণমূলছুটদের জন্য দরজা খুলে দেওয়া নাকি দরজা বন্ধ করে দেওয়া’, ‘এখনই সিএএ লাগু হোক নাকি বিলম্বিত থাকুক’, সায়নী ঘোষ ঠিক নাকি বেঠিক’, এইরকম বহু বিষয়ে বঙ্গ বিজেপির নেতারা এক এক জন এক এক সুরে কথা বলছেন। এগুলো একটা দলের Ideological bankruptcy-র লক্ষণ। ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি, পন্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায়ের পার্টির এই … পড়তে থাকুন “সিরাজ-শ্রীরাম সহাবস্থান’ নাকি ‘আপোষহীন হিন্দুত্ব’”

হিন্দু হতে হলে বাঙ্গালী পরিচয় ছাড়তে হবে?

পশ্চিমবঙ্গ আমার রাজ্য, ভারত আমার দেশ। আমি একজন বাঙ্গালী, আমি একজন হিন্দু। পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি ধূলিকণার মধ্যে দিয়ে আমি ভারতকে চিনেছি, বাঙ্গালীর সাংস্কৃতিক মূল্যবোধের মধ্য দিয়ে আমি হিন্দুত্বকে অনুভব করেছি। আমি পশ্চিমবঙ্গের নিরাপত্তা ও উন্নয়নের মাধ্যমে দেশের অখণ্ডতা ও উন্নয়ন সুনিশ্চিত করতে চাই, বাঙ্গালী জাতির সমৃদ্ধির মাধ্যমে ভারতকে সমৃদ্ধ করতে চাই। বাঙ্গালী জাতি ছিল, আছে আর … পড়তে থাকুন “হিন্দু হতে হলে বাঙ্গালী পরিচয় ছাড়তে হবে?”

শুভ বিজয়া

আজ শুভ বিজয়া। শুভেচ্ছা আদান প্রদান হচ্ছে, কোলাকুলি হচ্ছে, মিষ্টিমুখ হচ্ছে। কিন্তু এই বিজয়া কিসের সেলিব্রেশন? এই বিজয়া হল অশুভ শক্তির উপরে শুভ শক্তির বিজয়ের সেলিব্রেশন। এই বিজয় কিভাবে এসেছিল? এই বিজয় এসেছিল অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে শুভ শক্তির ভয়ানক বিধ্বংসী যুদ্ধের মাধ্যমে। এটা চিরন্তন সত্য যে এডুকেট করে, সংস্কার দিয়ে দুষ্কৃতীদের মনে শুভবুদ্ধির উদয় ঘটানো … পড়তে থাকুন “শুভ বিজয়া”

ইহুদীরা যদি পারে, বাঙ্গালীও পারবে

যার যোগ্যতা যতটা, এই পৃথিবীতে তার প্রাপ্য ঠিক ততটাই। আন্দোলনের প্রয়োজন তখনই হয় যখন যোগ্য প্রার্থীকে তার প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়। কিন্তু অযোগ্যকে তার অধিকার হাতে তুলে দিলেও সে সেই অধিকার রক্ষা করতে পারে না। তাই অযোগ্য’র আন্দোলন নিষ্ফলা। তাই অধিকার আদায়ের আন্দোলন এবং প্রাপ্য অধিকার রক্ষা করার যোগ্যতা অর্জনের চেষ্টা- এই দুটোই … পড়তে থাকুন “ইহুদীরা যদি পারে, বাঙ্গালীও পারবে”

নেপালের রয়্যাল ইঞ্জিনিয়ার রাজকৃষ্ণ কর্মকার

রাজকৃষ্ণ কর্মকার প্রথাগত শিক্ষায় শিক্ষিত সার্টিফায়েড ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন না। তাঁর বাবা মাধবচন্দ্র কর্মকার ছিলেন একজন দরিদ্র মিস্ত্রী। হাবড়ার দফরপুরে ১৮২৭ সালে রাজকৃষ্ণ জন্মগ্রহণ করেন। দারিদ্র্যের কারণে পাঠশালায় পড়া শেষ করেই রাজকৃষ্ণ তাঁর বাবার সাথে কারিগরি কাজে আত্মনিয়োগ করেন। তারপরে অল্প বয়সেই হাওড়া, হুগলী, কলকাতার বিভিন্ন কলকারখানায় শ্রমিক-কারিগর হিসেবে কাজে যোগদান করেন। ম্যাথামেটিক্যাল ইনস্ট্রুমেন্ট ওয়ার্কশপ, মিন্ট, … পড়তে থাকুন “নেপালের রয়্যাল ইঞ্জিনিয়ার রাজকৃষ্ণ কর্মকার”

বাঙ্গালী বনাম হিন্দু

নিজের ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতর আইডেনটিটিকে শক্তিশালী করে অপেক্ষাকৃত বৃহত্তর আইডেনটিটি গুলোর সাথে সমন্বয় রেখে মানবতা তথা সমগ্র সৃষ্টির সেবায় নিয়োজিত থাকাই আমাদের আদর্শ। আমাদের ছোট থেকে বড়- সব আইডেনটিটি গুলোর মধ্যে সম্পর্কের যে কল্পনা, তা কখনোই ‘কম্পার্টমেন্টাল রিলেশনশিপ’ নয়, যেখানে প্রতিটি আইডেনটিটি আলাদা আলাদা কক্ষে আবদ্ধ, একের সাথে অপরের কোনও সম্পর্ক নেই, বরং অনেক ক্ষেত্রেই … পড়তে থাকুন “বাঙ্গালী বনাম হিন্দু”

লোড হচ্ছে…

Something went wrong. Please refresh the page and/or try again.


Follow My Blog

Get new content delivered directly to your inbox.